রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন
ই-পেপার
সংবাদ শিরোনাম
সংবাদ শিরোনাম
লোহাগড়া উপজেলার কোটাকোল ইউনিয়নে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ আটক ৫ জন নড়াইলে ডিবির অভিযানে মাদক মামলার আসামী গাঁজাসহ আটক ১ জন ময়মনসিংহ মেডিকেলের করোনা ইউনিটে আরও ১৬জনের মৃত্যুঃ গোদাগাড়ী উপজেলা সমিতির উদ্যোগে জনসচেতনতা সৃষ্টি ও মাস্ক বিতরণ ক্যাম্পেইন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ পৌর শাখার ১,২,৩,৪ নং ওয়ার্ড কমিটি ১ বছরের জন্য অনুমোদন দেওয়া হয়েছে লকডাউন এর অষ্টম দিনে আগৈলঝাড়ার বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা। টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর থানা পুলিশের উদ্যোগে চলমান রয়েছে করোনার প্রতিরোধ মূলক প্রচারণা নওগাঁয় শিশুকে ঘরে আটকে রেখে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন আটক-১ নড়াইল জেলায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ২০ জন মৃত্যু ১ জন। ঢাক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির মায়ের মৃত্যু

মাঠের খেলা বর্জনে দেশে যুবা কিশোরদের মোবাইল আসক্ততা বাড়ছে

প্রতিনিধি নাম: / ৩৬ বার
সময় : মঙ্গলবার, ২৯ জুন, ২০২১, ৫:০৭ পূর্বাহ্ন

জিয়াউল কবীর স্বপন
ব্যুরো প্রধান(রাজশাহী):
দুপুর গড়িয়ে বিকাল অার নেই ছুটির ঘণ্টা।বাড়ি ফিরে তাড়াহুড়োয় পোশাক বদলে খেয়ে না খেয়েই দে দৌড় খেলার মাঠে। সূর্য ডোবার আগ পর্যন্ত চলতো ফুটবল-ক্রিকেট সহ বিভিন্ন রকমের দেশী বিদেশি খেলা৷ সে খুশির মগ্নতা থাকার দিন উবে গেছে এখনকার করোনাকালে। চলছে এন্ড্রয়েড মোবাইলে ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস গেইমে কিশোরদের অাসক্ততা ৷

গ্রামাঞ্চলের মাঠগুলো এখন গবাদি পশুর চারণভূমি! মাঠে নয়, কিশোর-তরুণদের এখন রাস্তার মোড়ের চায়ের দোকানে কিংবা কোনো নির্জন স্থানে বসে সময় কাটাতেই বেশি দেখা যায়। অনেকে সঙ্গদোষে তলিয়ে যাচ্ছে মাদকের দুনিয়ায়। এতে বাড়ছে অপরাধপ্রবণতা। তবে মাদকাসক্তির থেকেও স্মার্টফোনে আসক্তি বড় প্রতিবন্ধকতা হয়ে উঠছে তরুণদের মনের বিকাশ গঠনে, চরিত্র গঠনে। প্রায় সবার হাতে শোভা পাচ্ছে স্মার্টফোন।

আগের মতো এখন আর গ্রামীণ টুর্নামেন্ট দেখা যায় না, যে টুর্নামেন্টগুলোতে নিজ গ্রামের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করত তরুণরা। শক্তি বাড়াতে জেলা, বিভাগ কিংবা রাজধানী শহরের নামি ক্লাব আর একাডেমি থেকে দুয়েকজন খেলোয়াড় ভাড়া করে নেওয়া হতো। এখন চিত্রটা পুরোপুরি উল্টো। যাও দুয়েকটি টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়, সেখানে অংশ নেওয়া দলগুলো ভাড়ার খেলোয়াড় দিয়েই একাদশ সাজায়। নিজ গ্রাম কিংবা মহল্লার খেলোয়াড় থাকে দুয়েকজন। এর কারণ একটাই, মাঠের খেলায় এখন আর তেমন আগ্রহ নেই।

বর্তমানে সরকারী পৃষ্ঠপোষকতাও মিলছে না । খেলাধুলায় শিশু-কিশোরদের বিকাশে এটা বিরাট অন্তরায়। দায় পরিবারেরও আছে। সন্তানের হাতে যদি ফুটবল তুলে দেওয়া না হয়, ব্যাট তুলে দেওয়া না হয়, মাঠে পাঠানোর তাগিদ যদি অভিভাবকের মধ্যে না থাকে, তা হলে তারা তো ঘরে বসে বিভিন্ন ডিভাইস নিয়েই সময় কাটাবে।

এতে শিশু-কিশোরদের স্বাভাবিক বিকাশ ব্যহত হচ্ছে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। শিশু-কিশোর রোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. অসীম কুমার সাহা বলেন, ব্রেইনের যে অংশটা যে দিকে খাটাবে, ওই অংশটাই কেবল বিকশিত হবে। বাকি অংশগুলো কিন্তু আর বিকশিত হয় না। এই শিশু-কিশোরদের ক্ষেত্রেও এমনটি হচ্ছে। এখন পরীক্ষা-নিরীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, একজন মাদকাসক্ত ব্যক্তির ক্ষেত্রে যেমন লক্ষণ থাকে, ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসে আসক্তিদের ক্ষেত্রেও সেরকম দেখা যাচ্ছে। তাদের ব্রেইনের বিকাশ ঠিকভাবে হচ্ছে না। স্বাভাবিক জীবনযাপনে এটা বড় অন্তরায়।

তিনি আরো বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। ছেলেমেয়েরা দীর্ঘদিন ধরে আবদ্ধ অবস্থায় আছে। বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস দখল করে নিয়েছে খেলাধুলার স্থান। আগে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ভিত্তিক খেলাধুলার আয়োজন করা হতো, এখন এগুলো বন্ধ রয়েছে। শারীরিক ও মানসিক বৃদ্ধিতে খেলাধুলার প্রয়োজনীয়তা নতুন করে বলার কিছু নেই। তাই সবারই এদিকটাকে বিশেষ নজর দেওয়া দরকার।

জেলার বিজ্ঞজনেরা জানানা খেলাধুলা না করা বিভিন্ন বয়সি ছেলেমেয়ের মধ্যে শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যহানির শঙ্কা বাড়ছে। কয়েক বছর ধরে অনলাইননির্ভরতা বাড়ছে। করোনার সময় আরও বেড়েছে। খেলাধুলার মতো সুস্থ বিনোদনে বঞ্চিতরা প্রযুক্তিনির্ভরতায় তাদের কল্পনায় একটি কৃত্রিম জগৎ তৈরি করছে। হতাশা ধীরে ধীরে গ্রাস করছে কোমলমতি ছাত্রছাত্রীদের। কোভিড বাস্তবতায় অভিভাবকরা সন্তানদের মাসের পর মাস চার দেয়ালের মধ্যে আবদ্ধ করে রাখতে বাধ্য হচ্ছেন। এ অবস্থা দীর্ঘদিন অব্যাহত থাকলে নয়া যুবকদের অনৈতিক,মানষিক বিপর্যয়তার কোপানলে পড়ার অাশংকা দৃশ্যমান ৷


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর....

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
১,২৪৯,৪৮৪
সুস্থ
১,০৭৮,২১২
মৃত্যু
২০,৬৮৫
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
৯,৩৬৯
সুস্থ
১৪,০১৭
মৃত্যু
২১৮
স্পন্সর: একতা হোস্ট
এক ক্লিকে বিভাগের খবর