বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন
ই-পেপার

টিকা পেতে ভারত ছেড়ে চীন-রাশিয়ায় প্রতিবেশীরা

প্রতিনিধি নাম: / ৩৩ বার
সময় : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১, ১২:৫১ অপরাহ্ন

 

অনলাইন ডেস্ক :

বিশ্বের সর্ববৃহৎ ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী পুনের সেরাম ইনস্টিটিউট। ভারতে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ভয়াবহ আকার ধারণ করায় গত মার্চে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার রফতানি পুরোপুরি স্থগিত করে নয়াদিল্লি। ফলে দক্ষিণ এশিয়ার যে কয়েকটি দেশ টিকাদান কর্মসূচি শুরু করেছিল রফতানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তা স্থগিত করতে বাধ্য হয়। এই কারণে করোনাভাইরাসের টিকা পেতে দক্ষিণ এশিয়ার প্রতিবেশী দেশগুলো ভারত থেকে মুখ ফিরিয়ে চীন এবং রাশিয়ার দিকে ঝুঁকছে।

শ্রীলঙ্কা বুধবার থেকে দেশটির গর্ভবতী নারীদের শরীরে চীনের একটি টিকার প্রয়োগ শুরু করেছে। অন্যদিকে, নেপালও চীনের তৈরি অপর একটি ভ্যাকসিনের মাধ্যমে টিকাদান কর্মসূচি পুনরায় শুরু করেছে। গত মাসের শেষের দিকে মজুদ ফুরিয়ে যাওয়ায় যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ও চীনের সিনোফার্মের ভ্যাকসিনের প্রয়োগ স্থগিত হয়ে যায় নেপালে। চীনের সিনোফার্মের ১০ লাখের বেশি ডোজ টিকা পাওয়ার পর মঙ্গলবার থেকে আবারও টিকাদান শুরু করেছে নেপাল।

ফরাসী বার্তাসংস্থা এএফপিকে নেপালের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সামির কুমার অধিকারী বলেন, উভয় প্রতিবেশীসহ, যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া এবং বিশ্বের অন্যান্য অনেক দেশের কাছে করোনা টিকা সহায়তার অনুরোধ জানিয়েছিল নেপাল। কিন্তু এই অনুরোধে কেউই সাড়া দেয়নি; দেশে পৌঁছায়নি কোনও অতিরিক্ত টিকাও। দেশটিতে মাত্র ২ শতাংশ মানুষ করোনাভাইরাসের টিকার উভয় ডোজ পেয়েছেন। মার্চে দেশটির প্রায় ১৩ লাখ মানুষ অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার প্রথম ডোজ নেন। এরপরই টিকা সঙ্কটে দ্বিতীয় ডোজের অপেক্ষা শুরু হয় তাদের।

অন্যদিকে, সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বাংলাদেশ গত এপ্রিল থেকে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার দ্বিতীয় ডোজ এখনও প্রয়োগ করছে। গত মাসে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, সিনোফার্মের ৫ কোটি ডোজ টিকা কিনতে চায় বাংলাদেশ। চলতি সপ্তাহে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকের পর পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, স্পুটনিকের ৫০ লাখ ডোজ কিনবে ঢাকা।

সালমা আঁখি- দৈনিক সময়ের সংগ্রাম


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর....

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
১,২১০,৯৮২
সুস্থ
১,০৩৫,৮৮৪
মৃত্যু
২০,০১৬
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
১৬,২৩০
সুস্থ
১৩,৪৭০
মৃত্যু
২৩৭
স্পন্সর: একতা হোস্ট
এক ক্লিকে বিভাগের খবর