রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০৬:৫০ পূর্বাহ্ন
ই-পেপার
সংবাদ শিরোনাম
সংবাদ শিরোনাম
লোহাগড়া উপজেলার কোটাকোল ইউনিয়নে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ আটক ৫ জন নড়াইলে ডিবির অভিযানে মাদক মামলার আসামী গাঁজাসহ আটক ১ জন ময়মনসিংহ মেডিকেলের করোনা ইউনিটে আরও ১৬জনের মৃত্যুঃ গোদাগাড়ী উপজেলা সমিতির উদ্যোগে জনসচেতনতা সৃষ্টি ও মাস্ক বিতরণ ক্যাম্পেইন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ পৌর শাখার ১,২,৩,৪ নং ওয়ার্ড কমিটি ১ বছরের জন্য অনুমোদন দেওয়া হয়েছে লকডাউন এর অষ্টম দিনে আগৈলঝাড়ার বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা। টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর থানা পুলিশের উদ্যোগে চলমান রয়েছে করোনার প্রতিরোধ মূলক প্রচারণা নওগাঁয় শিশুকে ঘরে আটকে রেখে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন আটক-১ নড়াইল জেলায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ২০ জন মৃত্যু ১ জন। ঢাক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির মায়ের মৃত্যু

করোনার নমুনা দিতে রাজি হয়না অনেকে বাড়ি লকডাউন হয় যাওয়ার ভয়ে

সালমা আঁখি- দৈনিক সময়ের সংগ্রাম / ২০ বার
সময় : সোমবার, ২১ জুন, ২০২১, ৬:২৪ অপরাহ্ন

নিয়ামতপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের ধরমপুর গ্রামের বাসিন্দা নাজমুল। পরিবারের কয়েকজনসহ বেশ কিছুদিন যাবত সর্দি জ্বরে ভুগছেন। সামান্য করোনা উপসর্গ থাকলেও আমলে নিচ্ছেনা তারা। সাধারণ জ্বর ভেবেই পল্লী চিকিৎসকের নিকট চিকিৎসা নিয়ে যাচ্ছেন। ঘুরে বেড়াচ্ছেন গ্রাম-বাজারে।

এখনও কেন নমুনা দেননি? জানতে চাইলে তিনি জানান, যদি নমুনায় পজেটিভ আসে তখনতো পুরো পরিবার নিয়ে আইসলেশনে থাকতে হবে। এমন কি বাড়িটি লকডাউনও ঘোষণা করতে পারেন সংশ্লিষ্টরা। এতে দৈনন্দিন কাজ-কর্ম নিয়ে বিপদে পড়বেন। এ ভেবেই এখনও নমুনা দেননি। এমন সর্দি জ্বর এখন উপজেলার প্রতিটি পাড়ায় পাড়ায়। করোনা উপসর্গ থাকলেও বিভিন্ন ভয়ে নমুনা দিতে অনাগ্রহ তাদের। ফলে করোনা সংক্রমনের আশঙ্কা বাড়ছে গ্রামেগঞ্জে পাড়ায় পাড়ায়।

স্বাস্থ্য সচেতনরা মনে করছেন, অ্যান্টিজেন টেস্ট বেশি বেশি না হলে রোগীকে শনাক্ত করা সম্ভব না। ফলে সর্দিজ্বরে ভুগা ব্যক্তিরা সামান্য জ্বর ভেবেই চিকিৎসা নিচ্ছেন ও ঘুরে বেড়াচ্ছেন বাজারে বাজারে। যা বিপদজনক। ফলে অ্যান্টিজেন টেস্ট বেশি বেশি হলে তা ভাল সবার জন্য।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, সোমবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মোট ৪০ জনের অ্যান্টিজেন টেস্ট করা হয়। এতে ফলাফলে পজেটিভ আসে ৪ জনের। ওই চারটি পরিবারকে লকডাউন করা হয়েছে। এছাড়াও গত ৬ জুন থেকে সোমবার পর্যন্ত উপজেলায় মোট ৫৯০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ল্যাব টেস্টে এদের মধ্যে পজেটিভ হয়েছেন ১৪৭ জন। সংক্রমণের হার নিয়ামতপুরে এখনও আশঙ্কাজনক। ৩২ থেকে ৩৭% এ উঠানামা করছে। বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৮ জন রোগী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এরা এখন পর্যন্ত সুস্থ আছেন জানান স্বাস্থ্য বিভাগ। নিয়ামতপুরে এখন পর্যন্ত করোনায় মৃতের সংখ্যা ৮।

সরেজমিনে রোববার সন্ধ্যার পর উপজেলার বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে স্টলে স্টলে চলছে জমজমাট চায়ের আড্ডা। এসব স্টলে উপেক্ষিত হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি। স্বাস্থ্য বিধির তোয়াক্কা না করেই জনসমাগম ঘটিয়ে স্টলগুলোয় টিভি ছেড়ে গভীর রাত পর্যন্ত চলছে চায়ের আড্ডা।

অভিজ্ঞরা বলছেন, করোনার সংক্রমণ কমাতে এসব স্টলগুলোয় জোরালো বিধি নিষেধ আরোপ করা দরকার। প্রয়োজনে রাতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে এর ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন। নইলে গ্রামে গ্রামে করোনায় আক্রান্তের পরিণতি যেতে পারে ভয়াবহের দিকে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তোফাজ্জল হোসেন অ্যান্টিজেন টেস্ট প্রসঙ্গে জানান, সর্দিজ্বরে ভুগা ব্যক্তিরা করোনাক্রান্ত কিনা তা দ্রত সময়ে চিহ্নিত করার জন্য অ্যান্টিজেন টেস্ট ব্যবস্থা। এ টেস্টের ফলে রোগীকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা দিতে সুবিধা হয়। কিন্তু নিয়ামতপুরে করোনার সংক্রমণের হার এখনও বেশি থাকলেও সে তুলনায় অ্যান্টিজেন টেস্ট হচ্ছে কম। তিনি জানান, মহামারি করোনা মোকাবিলায় প্রত্যেককেই স্ব-প্রণোদিত হয়ে স্বাস্থ্য বিধি মানতে হবে। এছাড়াও উপসর্গ দেখা দিলেই নমুনা দিতে হবে। তবেই সঠিক সময়ে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ও ব্যবস্থা নিয়ে করোনা মোকাবিলা সম্ভব বলেন তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর....

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
১,২৪৯,৪৮৪
সুস্থ
১,০৭৮,২১২
মৃত্যু
২০,৬৮৫
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
৯,৩৬৯
সুস্থ
১৪,০১৭
মৃত্যু
২১৮
স্পন্সর: একতা হোস্ট
এক ক্লিকে বিভাগের খবর